মসজিদে সিসি ক্যামেরা লাগানোর নির্দেশ” ঈদুল আজহার নামাজে

আগামী ১ আগস্ট উদযাপন হতে যাচ্ছে মুসলিম উম্মাহর দ্বিতীয় বৃহত্তম ধর্মীয় উৎসব ঈদুল আজহা। উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্যে ঈদ উদযাপন করতে এবারও ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে রাজশাহী জেলা প্রশাসন। তবে এবার করোনা পরিস্থিতির মধ্যে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপিত হবে।

ঈদ উদযাপন করার জন্য জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে মসজিদে সিসিটিভি ক্যামেরা লাগানোসহ বিভিন্ন দিকনির্দেশনা দেয়া হয়েছে। রাজশাহীর জেলা প্রশাসক আবদুল জলিল এ নির্দেশ দিয়েছেন।

তিনি জানান, স্বাস্থ্যবিধি মেনে এবারও ঈদগাহ বা খোলা ময়দানের পরিবর্তে কাছের মসজিদেই ঈদুল আজহার জামাত অনুষ্ঠিত হবে। প্রয়োজনে একই মসজিদে একাধিকবার জামাত হবে।

জেলার প্রধান ঈদের জামাতসহ সব জামাতের সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে অনুরোধ করা হয়েছে। সব মসজিদে সিসিটিভি ক্যামেরার ব্যবস্থা করতে হবে।

এ ছাড়া কোরবানির পশুর উচ্ছিষ্টাংশ ও বর্জ্য দ্রুত অপসারণের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা করতে হবে ও নির্ধারিত জায়গায় কোরবানির পশু জবাই করতে হবে। ঈদের আগে আর কোথাও পশুর হাট বসানো যাবে না।

জাল টাকা, অজ্ঞানপার্টি ও মলম পার্টির খপ্পর থেকে সাবধান থাকতে হবে। ঈদের আনন্দ প্রকাশ করতে কোনোভাবেই উচ্চস্বরে গান বাজানো ও দ্রুতগতিতে যানবাহন চালানো যাবে না।

এ ছাড়া যে কোনো ধরনের গুজব থেকে সবাইকে সর্বোচ্চ সতর্ক থাকার জন্যও জেলা প্রশাসক আবদুল জলিল আহ্বান জানিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: