কক্সবাজারে করোনা ক্ষতিগ্রস্থদের খাদ্য সহায়তায় পাশে আছেন ডব্লিউএফপি

প্রেস বিজ্ঞপ্তি: কোভিড-১৯ এর কারণে ক্ষতিগ্রস্থ শহরে বসবাসকারী মানুষকে সহায়তা করার জন্য কক্সবাজার সদরে খাদ্য বিতরণ শুরু করলো ডব্লিউএফপি

১ আগস্ট ২০২০ (কক্সবাজার) পবিত্র ঈদ-উল-আযহার আগে কক্সবাজার সদরে কোভিড-১৯ এর কারণে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলোতে খাদ্য বিতরণ করে চলেছে ডব্লিউএফপি। কোভিড-১৯ এর ফলে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ কক্সবাজারের পরিবারগুলোকে ডব্লিউএফপি-এর চলমান সহায়তার একটি অংশ হিসেবে এই খাদ্য বিতরণ করা হচ্ছে।

বাজারে খাদ্যসামগ্রীর দাম বেড়ে যাওয়া ও দাম ওঠা-নামা করাতে কোভিড-১৯ ও এর অর্থনৈতিক প্রভাবের ফলে কক্সবাজার সদর উপজেলায় শহরে বসবাসকারী জনগণ ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।

বাংলাদেশে ডব্লিউএফপি-এর প্রতিনিধি রিচার্ড রেগান বলেন, “কক্সবাজারের জনগোষ্ঠীর এক বড় অংশ পর্যটন খাত ও দিনমজুরীর কাজের ওপর নির্ভরশীল। আর এই দুটি খাতই কয়েক মাসের জন্য পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যায় যা এখনো পুরোপুরিভাবে আগের অবস্থায় ফিরে আসেনি।” তিনি আরও বলেন, উপার্জনজনিত এই ক্ষতি তাদের খাদ্য নিরাপত্তাকে সরাসরিভাবে প্রভাবিত করতে পারে। আর তাই, চলমান সোস্যাল সেফটি নেট কর্মসূচির আওতায় যেসব মানুষ সহায়তা পাচ্ছেন না, তাদেরকে সহায়তার লক্ষ্যে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সাথে আমরা একসাথে কাজ করে যাচ্ছি।”

কক্সবাজারের ডেপুটি কমিশনার-এর অনুরোধে, গত ৮ জুন ২০২০ তারিখে ডব্লিউএফপি স্পেশাল সাপোর্ট ফর দ্যা হোস্ট কমিউনিটি (এসএসএইচসি) কার্যক্রম শুরু করে, যার লক্ষ্য ছিলো কোভিড-১৯ এর কারণে ক্ষতিগ্রস্থ কক্সবাজার সদরে বসবাসরত ৬২,০০০ মানুষসহ কক্সবাজার জেলার ৫ লক্ষ-এর বেশি ঝুঁকিতে থাকা মানুষকে খাদ্য ও অর্থসহায়তা দেওয়া।

পরিবারগুলো প্রাথমিকভাবে ৬০ কেজি করে চাল পেয়েছে। পরবর্তীতে, আগস্ট ও সেপ্টেম্বর মাসজুড়ে তাদেরকে অর্থসহায়তা দেওয়া হবে।

কোভিড-১৯ মহামারির সাথে লড়াই করার জন্য গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রচেষ্টায় সহায়তার পাশাপাশি ডব্লিউএফপি করোনাভাইরাসের অর্থনৈতিক প্রভাবের দ্বারা ক্ষতিগ্রস্থ শহরে বসবাসরত জনগণকে সহায়তা করবে, যা সামনে আরও বৃদ্ধি পাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: