লবন শিল্পকে বাচাঁতে হবে

দেশের লবনের সিংহভাগ আসে দেশের দক্ষিন পশ্চিম থেকে। অনেকগুলো মানুষের আয়ের উৎস এ লবন।কিন্তু লবনের দাম না থাকায় এ লবন শিল্প আজ হুমকির মুখে। চাষীরা আজ তাদের জীবন ও পরিবার নিয়ে বিপাকে। একদিকে মাঠে পড়ে আছে লাখ লাখ টন লবণ, অন্যদিকে শিল্প লবণের নামে আমদানি করা হচ্ছে। এতে চাষীরা লবণের ন্যায্যমূল্য না পেয়ে আবাদ ছেড়ে দিতে বাধ্য হচ্ছেন। ঋণ ও দাদন নেয়া এসব চাষীর যারা এখনো আবাদ করছেন, তারাও ছেড়ে দেয়ার চেষ্টায় আছেন।

চলতি অর্থবছরে দেশে ১৪ লাখ ৪০ হাজার ৭৫৮ টন শিল্প লবণ আমদানি করা হয়েছে। এর মধ্যে সোডিয়াম ক্লোরাইড ৮ লাখ ৯০ হাজার ১৮০ টন, হোয়াইট সোডিয়াম সালফেট ৫ লাখ ২৪ হাজার ৮৪ ও সোডিয়াম সালফেট ২৬ হাজার ৫৩০ টন। অথচ চাষীদের উৎপাদিত প্রায় নয় লাখ টন লবণ মাঠেই পড়ে আছে। এত লবণ থাকার পরও সরকারের ছত্রচ্ছায়ায় কতিপয় আমদানিকারক ১৪ লাখ ৪০ হাজার ৭৫৮ টন লবণ আমদানি করেছেন।

দেশের প্রধান লবণ উৎপাদনকারী জেলা কক্সবাজার। এ জেলার ৬২ হাজার একর জমিতে প্রতি বছর লবণ উৎপাদন হয়। কিন্তু মেগা প্রকল্পের কাজের জন্য সরকার জমি অধিগ্রহণ করায় ১৪ হাজার একর লবণের জমি কমে গেছে। এছাড়া ন্যায্যমূল্য না পাওয়ায় আরো ১২ হাজার একর জমিতে এবার লবণ আবাদ হচ্ছে না। এ অবস্থায় শুধু কক্সবাজার নয়, পুরো দেশের লবণ শিল্প ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে।লবনের দাম কমে গেছে।

তাই ক্রেতা নেই লবণের। চাষীরা তাই মাঠেই স্তুপ করে রেখেছে লবণ। এভাবে উৎপাদিত হাজার হাজার মণ লবণ মাঠেই পড়ে আছে। কুতুবদিয়ার অধিকাংশ মানুষ এখন লবণ চাষে যুক্ত হয়েছেন। কিন্তু লবণের দাম কমে যাওয়ায় তাদের দুর্দিন চলছে। তাই এ শিল্পকে বাচাঁতে আমাদের এগিয়ে আসতে হবে।
না হলে এ পেশায় জড়িত মানুষগুলোর জীবন আরো কঠিন থেকে কঠিনতর হবে।

লবণ প্রেক্ষাপটে লেখক: দিদারুল ইসলাম – চেয়ারম্যান “দৈনিক কুতুবদিয়া নিউজ”

Copyright© by Kutubdia News

kutubdianews

দৈনিক কুতুবদিয়া নিউজ সর্বস্তরের খবর অনুসন্ধানে সত্য তুলে ধরবো আমরা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: