এলাকাবাসী ও শ্রমিকদের মাঝে নতুন জামা-কাপড় বিতরণ করেন দি.জে.এ কর্পোরেশন প্রতিষ্ঠানের এম.ডি জয়নাল

চট্টগ্রাম জেলার অন্তর্গত বাঁশখালী উপজেলার পুকুরিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সফল চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আসহাব উদ্দিন  এর ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান জে.এ.কর্পোরেশনের ম্যানেজিং ডিরেক্টর (এম.ডি) জয়নাল আবেদীন ২০০জন  এলাকাবাসী ও  জে.এ কর্পোরেশনের  শ্রমিকদের মাঝে নতুন জামা-কাপড় বিতরণ করেন। সুদীর্ঘ ২৬ বছর ধরে তাদের সহযোগী প্রতিষ্ঠান ঝিনুক পোল্ট্রি এন্ড হ্যাচারী, আসহাব ফিস এন্ড এগ্রো ফার্ম (ব্রয়লার লেয়ার মুরগী, ডিম উৎপাদন, মৎস্য, দেশীয় কলা, পেঁপে, মাল্টা, আম, ড্রাগন, কমলাসহ বিভিন্ন ফল – ফলাদির ফার্মের) ১৫০ শ্রমিক নিয়মিত কাজ করে এবং শ্রমিকদের  রিফ্রেশমেন্ট করার জন্য প্রতি বছর পিকনিক তথা বনভোজনের আয়োজন করে এই বছর বৈশ্বিক মহামারি করোনার সংক্রমনের হার বৃদ্ধি পাওয়াতে শ্রমিকদের আনন্দে মেতে উঠার জন্য এবারের ভিন্ন কৌশলে বনভোজন করার জন্য প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান & CEO  আলহাজ্ব আসহাব উদ্দিন এর পরামর্শে শ্রমিকদের নিয়ে ফ্যাক্টরীর মধ্যে পিকনিকের  আনন্দ উৎযাপনসহ সবাইকে নতুন জামা-কাপড় বিতরণ করেন প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজিং ডিরেক্টর (এম.ডি) জয়নাল আবেদীন।

এতে শ্রমিকরা আনন্দে মেতে উঠে।শ্রমিকদের থেকে তাদের আনন্দের ব্যাপারে জানতে চাইলে তারা বলে এবার আমরা অভিন্ন আনন্দ উৎযাপন করলাম। আমাদেরকে নিয়ে আমাদের প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান ও এম.ডি সাহেবরা হাজারো ব্যস্ততার মধ্যেও   বছরে একবার হলে মালিক – শ্রমিক ভাই ভাই ধারায় আনন্দ উৎযাপন করি, তারেই ধারাবাহিকতায় এবছরও একটু দেরীতে হলেও এবার আনন্দ টা ভিন্ন রকমের মজা। তাছাড়া আমাদেরকে প্রতি দুুই ঈদে উৎসব-ভাতাসহ আমাদের পরিবারের জন্য ঈদের সেমাই ও কুরবানির মাংস বিতরণসহ আমাদের জরুরি চিকিৎসা সেবা প্রধান করে। আমরা আমাদের প্রতিষ্ঠাতা স্বাধিকার ও পরিচালকদের দীর্ঘায়ু কামনা করি।

অত্র এলাকাবাসী থেকে জানতে চাইলে তাদের পক্ষ থেকে আব্দুর রহমান, সৈয়দুল হক,  সোলাইমান, মোজাম্মেল, কাইছার, মহিউদ্দিনসহ অনেকে  বলেন আমরা প্রতি বছরের ন্যায় এই বছরেও নতুন জামা-কাপড় পাইলাম, আমরা শুধু জামা-কাপড় নয় আমরা সুখে – দুঃখে ঈদুল ফিতর,ঈদুল আযহাসহ বিভিন্ন সামাজিক – অনুষ্ঠানে  আমাদের সর্বসম্মতিক্রমে সবাইকে আনন্দ – উৎসব, সুখ-দুঃখ একসাথে পালন করি। এ ব্যাপারে আসহাব এগ্রো ফার্মের ম্যানেজিং ডিরেক্টর জয়নাল আবেদীন থেকে জানতে চাইলে ওনি বলেন আমরা প্রতি বছর এলাকাবাসী ও  শ্রমিকদের নিয়ে বনভোজন আয়োজন করি ঠিক এবারও ভিন্ন কৌশলে বনভোজন আয়োজন করলাম বিশেষ করে  শ্রমিকদের সম্মতিতে। আমরা মালিক – শ্রমিক এক পরিবারের হয়ে কাজ করি আমাদের মধ্যে কোন বিভেদ নেই। আমরা চাই মালিক – শ্রমিক ভাই ভাই এভাবে আমাদের প্রতিষ্ঠানকে ওরা আজ এগিয়ে এনেছে আমরা শ্রমিকদের সুস্থতা-সহ তাদের দীর্ঘায়ু ও উত্তরোত্তর সফলতা কামনা করি।

Copyright© by Kutubdia News

kutubdianews

দৈনিক কুতুবদিয়া নিউজ সর্বস্তরের খবর অনুসন্ধানে সত্য তুলে ধরবো আমরা

Leave a Reply

x
%d bloggers like this: