প্রেমের টানে যেভাবে কলকাতায় পৌছালেন বাংলাদেশি তরুণী

প্রেম মানেনা কোন বাধাঁ। মানে না কোন বিভেদ কিংবা কোন দেশের সীমান্তের কাঁটা তারের প্রতিবন্ধকতা। কথাটি যেন আবারো প্রমাণিত হলো। আলাপ হয় ফেসবুকে। সেই আলাপ পরিণত হয় প্রেমে। প্রেমের টানেই এক ঘণ্টা নদী সাঁতরে পশ্চিমবঙ্গে আসে এক বাংলাদেশের এক তরুণী। প্রিয় মানুষটিকে কাছে পাবে- এই ভরসাতেই সুন্দরবনের ঘন জঙ্গল, রয়েল বেঙ্গল টাইগার কিংবা অন্য পশুর ভয়কে উপেক্ষা করেই বাংলাদেশ থেকে পশ্চিমবঙ্গে আসে ওই তরুণী।

কলকাতার কালীঘাটে গিয়ে পছন্দের পুরুষকে বিয়েও করে ওই তরুণী। কিন্তু তবুও শেষ রক্ষা হল না। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে নরেন্দ্রপুর থানার অধীন রানিয়া এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয় ওই তরুণীকে। বাংলাদেশি ওই তরুণীর নাম কৃষ্ণা মন্ডল। অবৈধভাবে ভারতে প্রবেশ করার অভিযোগে তার বিরুদ্ধে মামলাও দায়ের করা হয়েছে।

জানা যায়, মাস ছয়েক আগে রানিয়ার বাসিন্দা অভীক মন্ডলের সাথে কৃষ্ণার আলাপ হয় ফেসবুকে। সেই আলাপ পরিণত হয় প্রেমে। নিজেদের ভালোবাসাকে পূর্ণতার রূপ দিতে বাঘের ভয়কে উপেক্ষা করে ঘন জঙ্গল পেরিয়ে নদী সাঁতরে এপারে আসে কৃষ্ণা। আজ মঙ্গলবার বারুইপুর মহকুমা আদালতে তোলা হয় কৃষ্ণা মন্ডলকে। এর আগে এদিন সকালে সোনারপুর ব্লক গ্রামীণ হাসপাতালে তার মেডিকেল চেক আপ করা হয়। তবে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে সাংবাদিকদের কোন প্রশ্নের উত্তরই দেননি ওই তরুণী। উল্টো কাপড় নিয়ে মুখ ঢেকে সাংবাদিকদের এড়িয়ে যান তিনি।

kutubdianews

দৈনিক কুতুবদিয়া নিউজ সর্বস্তরের খবর অনুসন্ধানে সত্য তুলে ধরবো আমরা

Leave a Reply

x
%d bloggers like this: