পুকুরে ডুবে শিশুর মৃত্যু: সচেতনতা ও করনীয়

চোখ রাখলে কুতুবদিয়ার পত্রিকা ও সোস্যাল মিড়িয়ার এখন প্রতিদিনের খবর ‘পুকুরে ডুবে শিশুর মৃত্যু’। এটা থামার কোন লক্ষন নেই। প্রিয় ছেলে বা মেয়েকে হারিয়ে মা বাবার আহাজারি আরো ভারি হচ্ছে। পুকুর যা কিনা প্রয়োজনীয় এখন শিশুদের মৃত্যু কুপ। পানির সংকট মেটাতে ভিটা মাটির সাথে পুকুর খনন করা আমাদের রীতি যা আমাদের পূর্ব পুরুষ থেকে। বাড়ি আঙিনায় বা বাড়ি থেকে পা বাড়াতেই পুকুর। থাকে না কোন বেষ্টনী বা বেড়া।

অবুঝ শিশুরা খেলতে বা কোন কিছু পানি থেকে নিতে গেলেই পড়ে যায় পানিতে। এতে সর্বনাশ হয় আমাদের আগামীর লালিত সপ্ন। আকাশ বাতাস ভারী হয় আহাজারিতে। এই চিত্র একেক দিন একেক গ্রামে চলছে। চাই সবার সচেতনতা যা আমরা করতে পারি – ১, পুকুরের চারপাশে বেষ্টনী। ২, পুকুর পাড়ে যাতায়াত না রাখা। ৩, বাড়ির একটু দূরে পুকুর খনন করা। ৪, পুকুরের পাশে খেলা করা বা না যেতে শিশুদের বুঝানো। ৫, শিশুদের পুকুরে গোসল না করানো। ৬, শিশুদের বয়স বাড়ার সাথে সাথে সাতার শেখানো। ৭, সামাজিক সচেতনতা বৃদ্ধি করানো।

সচেতন বার্তায়: প্রফেসর দিদারুল ইসলাম।
চেয়ারম্যান – দৈনিক কুতুবদিয়া নিউজ

kutubdianews

দৈনিক কুতুবদিয়া নিউজ সর্বস্তরের খবর অনুসন্ধানে সত্য তুলে ধরবো আমরা

Leave a Reply

x
%d bloggers like this: